×
  • প্রকাশিত : ২০২২-০৯-২২
  • ৮ বার পঠিত
করোনাভাইরাসের আগের সময়ের ‘হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে’ পদ্ধতিতে ফিরছে আইপিএল। পরের মৌসুম থেকে ১০টি দল নিজেদের ও প্রতিপক্ষের নির্দিষ্ট ভেন্যুতেই গ্রুপ পর্বের ম্যাচগুলো খেলবে, এমন জানিয়ে রাজ্য সংস্থাগুলোকে চিঠি দিয়েছেন ভারতের ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলী, জানিয়েছে পিটিআই। আগামী বছরের শুরুতে মেয়েদের আইপিএল শুরু হবে বলেও জানিয়েছেন গাঙ্গুলী।

করোনাভাইরাসের কারণে ২০২০ সালে আইপিএল হয়েছিল সংযুক্ত আরব আমিরাতে। দর্শকশূন্য অবস্থায় দেশটির তিনটি ভেন্যু দুবাই, আবুধাবি ও শারজায় হয়েছিল বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক ক্রিকেট লিগ। এর মধ্যেই ২০২১ মৌসুমে আইপিএলে বাড়ানো হয় দুটি দল—গুজরাট ও লক্ষ্ণৌ।

ওই মৌসুমে ১০ দলের আইপিএল শুরু হয়েছিল ভারতেই, খেলা হওয়ার কথা ছিল দিল্লি, মুম্বাই, আহমেদাবাদ ও চেন্নাইয়ের চারটি ভেন্যুতে। তবে দলগুলোতে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর স্থগিত করা হয় সেটি। আবারও আইপিএল নিয়ে যাওয়া হয় সংযুক্ত আরব আমিরাতে। এরপর গত মৌসুমে আইপিএল হয় মুম্বাইয়ের তিন ভেন্যু ওয়াংখেড়ে, নাবি মুম্বাই ও ব্র্যাবোর্ন আর পুনে, কলকাতা ও আহমেদাবাদে।

তবে পরিস্থিতি আবার ‘স্বাভাবিক’ হচ্ছে বলে আইপিএলকে ফিরিয়ে নেওয়া হচ্ছে পুরোনো ফরম্যাটে, রাজ্য সংস্থাগুলোতে ২০ সেপ্টেম্বর দেওয়া চিঠিতে এমন জানিয়েছেন গাঙ্গুলী।

আগামী বছরের শুরুতে দক্ষিণ আফ্রিকায় হতে যাওয়া মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরপরই মেয়েদের আইপিএল শুরু হবে বলেও চিঠিতে জানিয়েছেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট, ‘বিসিসিআই বহুল প্রতীক্ষিত নারী আইপিএল নিয়ে কাজ করছে এখন। পরের বছরের শুরুর দিকেই আমরা এর প্রথম মৌসুম শুরু করার প্রত্যাশা করছি।’

অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশ, ইংল্যান্ডে টি-টোয়েন্টি ব্লাস্ট ও দ্য হানড্রেডে মেয়েদের জন্য পূর্ণাঙ্গ লিগ থাকলেও এত দিন ভারতের আইপিএলে সেটি হয়নি। ছেলেদের লিগে ১৫টি আসর হয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত মেয়েদের ক্ষেত্রে চারটি মৌসুমে হয়েছে সংক্ষিপ্ত আকারে ‘উইমেনস টি-টোয়েন্টি চ্যালেঞ্জ’। ২০১৮ সালে হয়েছিল একটি ম্যাচ, এরপর ২০১৯, ২০২০ ও ২০২২ সালে হয়েছে তিন দলের টুর্নামেন্ট। মাঝে ২০২১ সালে আবার সেটিও হয়নি। 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...
ক্যালেন্ডার...

Sun
Mon
Tue
Wed
Thu
Fri
Sat